২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ


আইডিয়াল স্কুলে শিক্ষক নিয়োগ বাতিলের দাবি অভিভাবকদের

ডেস্ক রিপোর্ট>> মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজে শিক্ষক নিয়োগে ব্যাপকভাবে অনিয়ম ও দুর্নীতি হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন ওই প্রতিষ্ঠানের অভিভাবক ফোরাম। অবিলম্বে নিয়োগ বাতিল করে পুনরায় নিয়োগ পরীক্ষা আয়োজনের দাবি জানানো হয়। রোববার অভিভাবক ফোরামের যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল রাজ্জাক স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এমন দাবি জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ৯ মার্চ আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজে ৫৫ জন শিক্ষক ও ৬ জন অফিস সহকারী নিয়োগে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতি হয়েছে। ওই শিক্ষক নিয়োগ বাতিল করে পুনরায় পরীক্ষা নেয়ার দাবি জানায়। নিয়োগে অনিয়ম করায় অধ্যক্ষের দুর্নীতির বিরুদ্ধে তদন্ত করার দাবিও জানান অভিভাবক ফোরাম।

আরও বলা হয়, অভিযোগ উঠেছে অনেকের কাছ থেকে চুক্তি মোতাবেক ৬ থেকে ১২ লাখ টাকা পর্যন্ত নেয়া হয়েছে। এদের পূর্বেই প্রশ্ন বলে দেয়া হয়েছে। মৌখিক পরীক্ষায় নম্বর বেশি দিয়ে তাদের উত্তীর্ণ করা হয়।

অধ্যক্ষ শাহান আরা বেগমের ভাগনিকে স্বজনপ্রীতি করে জীববিদ্যা বিষয়ে শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দেয়। অধ্যক্ষের নেতৃত্বে শিক্ষক নিয়োগ বাণিজ্যের সিন্ডিকেট দীর্ঘদিন ধরে চলছে। তাদের সিন্ডিকেটের অধিকাংশ প্রার্থীকেই নিয়োগপত্র দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সভাপতির অপরিসীম চেষ্টা থাকা সত্ত্বেও স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় শিক্ষক নিয়োগ সম্পন্ন করা যায়নি। গত ৯ মার্চ বিকেল ৫টায় লিখিত পরীক্ষার ফলাফল দেয়া কথা থাকলেও পরদিন দুপুর দেড়টায় ফলাফল প্রকাশিত হয়।

উল্লেখ্য, ২০১০ সাল থেকে ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চারশতাধিক শিক্ষক ও দেড়শ কর্মচারীকে লাখ লাখ টাকার বিনিময়ে নিয়োগ দেয়ার অভিযোগ রয়েছে। নিয়োগকৃত অনেক শিক্ষকের শিক্ষক নিবন্ধন সনদ ও একাডেমিক সনদ ভুয়া বলে অভিযোগ উঠেছে। আইডিয়াল স্কুলে এমন কোনো খাত নাই যেখানে দুর্নীতি হচ্ছে না। স্কুলের কোনো কোনো অফিস সহকারী শেয়ার বাজারে কোটি কোটি টাকা বিনিয়োগ করছেন এবং কেউ কেউ নতুন নতুন গাড়ি ব্যবহার করছেন।