১৯শে এপ্রিল, ২০২১ ইং, ৬ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ


ইডেন শিক্ষার্থীর গায়ে হাত, চাঁদনি চকের ৪ কর্মচারী আটক

ডেস্ক রিপোর্ট>> তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইডেন কলেজের চার শিক্ষার্থীর গায়ে হাত তোলার অভিযোগে রাজধানীর চাঁদনি চক মার্কেটের দুই দোকানের চার কর্মচারীকে আটক করা হয়েছে।

শনিবার দুপুরে তাদের আটক করে নিউমার্কেট থানায় আনা হয়।

নিউ মার্কেট থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আলমগীর জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শুক্রবার ইডেনের চার শিক্ষার্থী কেনাকাটা করতে চাঁদনি চকে আসে। তাদের সঙ্গে একজনের মা এবং খালা ছিলেন। ভিড়ের কারণে মা ও খালা তাদের কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যান। পরে মা ও খালা শাহনুর ফেব্রিক্সের সামনে দাঁড়িয়ে তাদের ফোন দেয় এবং নিয়ে যেতে বলে। এসময় তাদের হাতে থাকা দুইটি কাপড়ের বড় ব্যাগ শাহনুর ফেব্রিক্সের গেটের পাশে রাখে। তখন কর্মচারীরা অভিযোগ করে ব্যাগের কারণে দোকানে ক্রেতাদের ঢুকতে সমস্যা হচ্ছে। এসময় তারা ওই দুই নারীর সঙ্গে খারাপ আচরণ করে। এর কিছুক্ষণ পর ওই শিক্ষার্থীরা দোকানে আসলে কর্মচারীদের সঙ্গে তর্ক-বিতর্ক হয়। একপর্যায়ে এক কর্মচারী তাদের ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দেয় এবং দীর্ঘক্ষণ অশ্লীল মন্তব্য করে।

শনিবার সকালে নিউ মার্কেট থানায় অভিযোগ করলে চাঁদনি চকে অভিযান চালায় পুলিশ। অভিযানে ওই চার কর্মচারীকে আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন- শাহনুর ফেব্রিক্সের কর্মচারী নজরুল ইসলাম, আল-আমিন এবং আবুল হোসেন। আরেকজন পাশের দোকানের নয়ন।

এসআই আলমগীর জানান, তাদের বিরুদ্ধে ইভটিজিং এবং শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ এনে মামলা হচ্ছে।

ডেস্ক রিপোর্ট>> তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইডেন কলেজের চার শিক্ষার্থীর গায়ে হাত তোলার অভিযোগে রাজধানীর চাঁদনি চক মার্কেটের দুই দোকানের চার কর্মচারীকে আটক করা হয়েছে।

শনিবার দুপুরে তাদের আটক করে নিউমার্কেট থানায় আনা হয়।

নিউ মার্কেট থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আলমগীর জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শুক্রবার ইডেনের চার শিক্ষার্থী কেনাকাটা করতে চাঁদনি চকে আসে। তাদের সঙ্গে একজনের মা এবং খালা ছিলেন। ভিড়ের কারণে মা ও খালা তাদের কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যান। পরে মা ও খালা শাহনুর ফেব্রিক্সের সামনে দাঁড়িয়ে তাদের ফোন দেয় এবং নিয়ে যেতে বলে। এসময় তাদের হাতে থাকা দুইটি কাপড়ের বড় ব্যাগ শাহনুর ফেব্রিক্সের গেটের পাশে রাখে। তখন কর্মচারীরা অভিযোগ করে ব্যাগের কারণে দোকানে ক্রেতাদের ঢুকতে সমস্যা হচ্ছে। এসময় তারা ওই দুই নারীর সঙ্গে খারাপ আচরণ করে। এর কিছুক্ষণ পর ওই শিক্ষার্থীরা দোকানে আসলে কর্মচারীদের সঙ্গে তর্ক-বিতর্ক হয়। একপর্যায়ে এক কর্মচারী তাদের ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দেয় এবং দীর্ঘক্ষণ অশ্লীল মন্তব্য করে।

শনিবার সকালে নিউ মার্কেট থানায় অভিযোগ করলে চাঁদনি চকে অভিযান চালায় পুলিশ। অভিযানে ওই চার কর্মচারীকে আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন- শাহনুর ফেব্রিক্সের কর্মচারী নজরুল ইসলাম, আল-আমিন এবং আবুল হোসেন। আরেকজন পাশের দোকানের নয়ন।

এসআই আলমগীর জানান, তাদের বিরুদ্ধে ইভটিজিং এবং শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ এনে মামলা হচ্ছে।