২রা জুলাই, ২০২০ ইং, ১৮ই আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ


চলতি সপ্তাহে চূড়ান্ত ফল : নিয়োগ পাচ্ছেন ১৮ হাজার শিক্ষক

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের চূড়ান্ত ফল তৈরির কাজ শেষ হয়েছে। আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যে এ ফলাফল প্রকাশ করা হবে বলে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই) থেকে জানা গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. এ এফ এম মনজুর কাদির সোমবার জাগো নিউজকে বলেন, ‘শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় পরীক্ষার চূড়ান্ত ফল তৈরির কাজ শেষ হয়েছে। আগামী দুই তিন দিনের মধ্যে মন্ত্রী, সচিব ও নিয়োগ কমিটির সদস্যরা বসে এ ফলাফল প্রকাশ করা হবে।’

তিনি বলেন, বুয়েটের মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগের ফলাফল তৈরির কাজ শেষ করা হয়েছে। বুয়েটের মাধ্যমে এ ফল প্রকাশ করা হবে। ফলাফল প্রকাশের পর ডিপিই’র ওয়েবসাইটে দেয়া হবে। এ নিয়োগের মাধ্যমে রাজস্ব খাতভুক্ত মোট সাড়ে ১৮ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নিয়োগ কমিটির এক সদস্য জানান, ২৪ থেকে ২৬ ডিসেম্বরের মধ্যে এ ফল প্রকাশ করা হতে পারে। ফলাফল প্রকাশের জন্য ২৩ ডিসেম্বর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক সভায় আলোচনা হয়েছে। ফল তৈরির কাজ শেষ হয়েছে। ২৬ ডিসেম্বরের মধ্যে যেকোনো দিন তা প্রকাশ করা হবে।

ডিপিই সূত্র জানায়, নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের সময় ১২ হাজার পদের কথা বলা হলেও শূন্য পদের চাহিদা বিবেচনা করে তা ১৮ হাজারে উন্নীত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এতে মৌখিক পরীক্ষা দেয়া প্রতি তিনজনের মধ্যে একজনের নিয়োগ প্রাপ্তির সুযোগ সৃষ্টি হচ্ছে।

জানা যায়, জাতীয়করণকৃত ২৬ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক-প্রাথমিক পর্যায় খোলা হলেও সেখানে এখনো শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হয়নি। চলতি নিয়োগের ফল প্রকাশের পর নতুন করে আরও ২৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের প্রস্তুতি নিচ্ছে ডিপিই।

গত সেপ্টেম্বরে প্রকাশিত হয় লিখিত পরীক্ষার ফল। তাতে উত্তীর্ণ হন ৫৫ হাজার ২৯৫ জন। এরপর ৬ অক্টোবর থেকে মৌখিক পরীক্ষা শুরু হয়। জেলায় জেলায় এ পরীক্ষা শেষ করতে এক মাস লেগে যায়।

এরপর সারাদেশ থেকে আসা ফল পরীক্ষা সমন্বয়ের দায়িত্বে থাকা বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে চূড়ান্ত ফল প্রকাশ করা হবে। ফলাফল প্রকাশের পর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ডিপিই’র ওয়েবসাইটে দেয়া হবে।