২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং, ৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ


ছাত্রের ঘুষিতে নাক ফাটলো শিক্ষকের

নিজস্ব প্রতিবেদক» পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে কলেজ সংলগ্ন মাঠে খেলতে বাধা দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে শিক্ষকের উপর হামলা চালিয়েছে ছাত্ররা। ছাত্রের ঘুষিতে কলেজ শিক্ষক আহমেদ আলী বিভোরের নাক ফেটে যায়। উপস্থিত শিক্ষক ও ছাত্ররা হামলাকারি এক ছাত্রকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করেছে। সে ফেনী কম্পিউটার ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্র জানায়, রবিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কলেজের সাবেক প্রশাসনিক ভবনের ১০৩নং হলে পরীক্ষা চলছিল। ওইসময় সংলগ্ন সরকারি পাইলট হাই স্কুল মাঠে কলেজ ছাত্র জাবেদ জাহান হৃদয়, নোমান ও কম্পিউটার ইনস্টিটিউটের ছাত্র মিরাজ সহ একদল ছাত্র ফুটবল খেলছিল। কয়েকজন শিক্ষক মাঠে এসে ছাত্রদের খেলতে নিষেধ করে। ক্ষিপ্ত হয়ে তারা পরীক্ষার হলে গিয়ে শিক্ষকদের উপর হামলা চালায়। এতে উদ্ভিদ বিদ্যা বিভাগের প্রভাষক আহমেদ আলী বিভোর গুরুতর আহত হন। প্রত্যক্ষদর্শী এক শিক্ষক জানান, মিরাজের ঘুষিতে আহমেদ বিভোরের নাক ফেটে যায়। এসময় উপস্থিত ছাত্র-শিক্ষকরা তাকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করে। হামলাকারি অন্যরা পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে ফেনী মডেল থানায় মামলা দেয়া হয়েছে।
ফেনী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো: আবুল কালাম আজাদ জানান, এ ঘটনায় তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিতে বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান হুমায়ুন কবীর, গনিত বিভাগের জহিরুল ইসলাম ও হিসাববিজ্ঞান বিভাগের ওয়াসিম পাটোয়ারিকে রাখা হয়েছে। নবগঠিত কমিটিকে আগামী ৫ কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।