২রা জুলাই, ২০২০ ইং, ১৮ই আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ


প্রাথমিকে বৃত্তি পেল সাড়ে ৮২ হাজার শিক্ষার্থী

প্রাথমিক সমাপনীর বৃত্তির ফল প্রকাশ করা হয়েছে। এ বছর মোট ৮২ হাজার ৫০০ শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দেয়া হয়েছে। এরমধ্যে ট্যালেন্টপুলে ৩৩ হাজার ও সাধারণ কোটায় ৪৯ হাজার ৫০০ শিক্ষার্থী বৃত্তি পেয়েছে।

রোববার (২৪ মার্চ) দুপুরে সচিবালয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মো. জাকির হোসেন সংবাদ সম্মেলনে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের তালিকা প্রকাশ করে এর বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব মো. আকরাম আল হোসেন, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক মনজুর কাদিরসহ মন্ত্রণালয় ও অধিদফতরের কর্মকর্তারা।

লিখিত বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী বলেন, এবার ট্যালেন্টপুলে বৃত্তিপ্রাপ্তদের মাসে ৩০০ টাকা এবং সাধারণ বৃত্তিপ্রাপ্তদের মাসে ২২৫ টাকা করে দেয়া হবে। ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত তিন বছর এ টাকা দেয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এবার মোট সাত হাজার ৯৮৮টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার প্রতিটিতে ছয়জন করে (তিন ছাত্র ও তিন ছাত্রী) মোট ৪৭ হাজার ৯২৮টি সাধারণ বৃত্তি দেয়া হয়েছে। আর অবশিষ্ট ১৫৭২টি বৃত্তি থেকে প্রতি উপজেলায় আরও তিনটি করে (এক ছাত্র ও এক ছাত্রী এবং উপজেলার মেধার ভিত্তিতে এক জন) মোট ৫১০টি উপজেলায় ১৫৩০টি সাধারণ বৃত্তি দেয়া হবে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেন, এখন সব শিক্ষার্থী বৃত্তির প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারে। আগে কিছু মেধাবী শিক্ষার্থী বৃত্তি পরীক্ষায় অংশ নেয়ার সুযোগ পেত। ফলে অনেকেই বঞ্চিত হত। এখন সুযোগ বেড়েছে।

তিনি জানান, ঝরে পড়া বন্ধ, শ্রেণিকক্ষে উপস্থিতি বাড়ানো ও মেধা বিকাশের লক্ষ্যে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে বৃত্তি দেয়া হয়।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বৃত্তিপ্রাপ্তদের তালিকা প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের ওয়েবসাইটে (www.dpe.gov.bd) পাওয়া যাবে।