১৯শে এপ্রিল, ২০২১ ইং, ৬ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ


ফুলগাজীর জি.এম.হাট সৎ মা হত্যাকারী ঘাতক ছেলে সঞ্জিত মজুমদার গ্রেফতার

ফুলগাজী প্রতিনিধি : ফেনীর ফুলগাজীর জি.এম.হাট ইউনিয়নের শ্রীচন্দ্রপুর গ্রামে সৎ মা আপা রানীকে হত্যাকারী ঘাতক ছেলে সঞ্জিত মজুমদারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার সন্ধ্যায় ফুলগাজী বাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

ফুলগাজী থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) এম এম মোর্শেদ জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে সোমবার সন্ধ্যায় ফুলগাজী বাজার থেকে ঘাতক সঞ্জিত মজুমদারকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি জানান, গত ২৯ আগস্ট ঘটনার পর সে ভারত পালিয়ে যায়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পাওয়া যায় সঞ্জিত মজুমদার ভারতের বিলোনিয়া থানার মাইছড়া বাজার এলাকায় অবস্থান করছে। তখন ভারতের বিলোনিয়া থানা পুলিশের সাথে যোগাযোগ করা হয়। এরি মাঝে সঞ্জিত সোমবার অবৈধ পথে ভারত থেকে দেশে ফিরে। খবর পেয়ে ফেরার পথে তাকে ফুলগাজী বাজার এলাকা তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে ২৯ আগস্ট মঙ্গলবার রাতে ফুলগাজী উপজেলার জি.এম.হাট ইউনিয়নের দক্ষিণ শ্রীচন্দ্রপুর গ্রামে সৎ ছেলের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে খুন হয়েছে সৎ মা আপা রানী(৫০)। ঘটনার পর ছেলে সঞ্জিত মজুমদার (৩২) পালিয়ে যান।

ফুলগাজী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এমএম মোর্শেদ জানান, গত ২৯ আগস্ট মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার জি.এম.হাট ইউনিয়নের দক্ষিণ শ্রীচন্দ্রপুর গ্রামের অনিল মজুমদারের প্রথম সংসারের ছেলে সঞ্জিত মজুমদার (৩২) তার সৎ মা আপা রানির সাথে পারিবারিক কলহের জের ধরে ঝগড়ার একপর্যায়ে তাঁর মুখের পাশে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করেন।

এসময় স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রথমে ফেনী ২৫০ শয্যা জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।