২১শে অক্টোবর, ২০২১ ইং, ৫ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ


বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার স্বপ্ন পূরণ হলো না তানভীরের

ক্যাম্পাস ডেস্ক» নরসিংদীত সদর উপজেলায় বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ তানভীর আহাম্মেদ খান নামে এক শিক্ষার্থীকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ি থেকে ঢাকা যাওয়ার সময় বাড়ির অদূরে তাকে হত্যা করা হয়।

নিহত তানভীর আহাম্মেদ খান সদর উপজেলার বীরপুর এলাকার নাসির উদ্দিন খানের ছেলে। সে এবার নটরডেম কলেজ থেকে জিপিএ-৫ পেয়ে এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়। সম্প্রতি সে রাজশাহী ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছিল।

পুলিশ ও নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, তানভীর আহাম্মেদ বই-পত্র আনার জন্য সকাল ৬টার দিকে ট্রেনে ঢাকায় যাওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হয়। সকাল ১০টায় তার মা তাকে ফোন দেন। কিন্তু তার কোনো সাড়াশব্দ পাওয়া যায়নি। পরে স্থানীয়রা বীরপুর স্কুলের পশে একটি দোকানের পেছনে বুকে ছুরিবিদ্ধ একটি মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে। পরে তারা রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ি ও নিহতের বাড়িতে খবর দেয়। রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

নিহত তানভীরের মামা আঙ্গুর জানান, ঢাকায় যাওয়ার সময় তানভীরের বাবা তাকে ট্রেনে তুলে দিয়ে যান। ট্রেন ধরার জন্য সে একটু আগে বাসা থেকে বের হয়ে যায়। একটু পরই তার বাবা ছেলেকে ট্রেনে তুলে দিতে স্টেশনে যান। কিন্তু ট্রেন চলে যাওয়ায় ছেলের সঙ্গে আর দেখা হয়নি। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বাড়ির অদূরে তার মরদেহ পড়ে থাকার খবর পাওয়া যায়।

নিহতের খালা শিউলি বেগম বলেন,তানভীর খুবই শান্ত প্রকৃতির ছেলে। তার কোনো শত্রু নেই। বই ও বেডিং আনার জন্য ট্রেনে ঢাকায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয় সে। এরপর তার মৃত্যুর খবর পাই। আমরা এই হত্যার বিচার চাই।

রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ শাহ আলম জানান, ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে তানভীরের মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।