২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ


শিক্ষকদের সম্মান পেতে শেখ হাসিনা সরকারের বিকল্প নেই

ডেস্ক রিপোর্ট>> শিক্ষকদের সর্বোচ্চ সম্মান পেতে হলে শেখ হাসিনাকে আবার ক্ষমতায় আনতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

তিনি বলেছেন, অতীতের শিক্ষকদের দাবি পূরণ এবং শিক্ষকদের উন্নয়নে শেখ হাসিনাই কাজ করেছে। শিক্ষকদের সর্বোচ্চ সম্মান না দিতে পারলে দেশের উন্নয়ন হয়ে লাভ নেই। শিক্ষকদের সর্বোচ্চ সম্মান পেতে হলে আগামী নির্বাচনে শেখ হাসিনার সরকার আনার কোনো বিকল্প নেই।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের মিলনায়তনে শিক্ষকদের জাতীয় প্রতিনিধি সভায় খালিদ মাহমুদ এসব কথা বলেন।

শিক্ষা ব্যবস্থা জাতীয়করণ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর পরিকল্পনা দ্রুত বাস্তবায়নের দাবিতে জাতীয় প্রতিনিধি সভার আয়োজন করে স্বাধীনতা শিক্ষক কর্মচারী ফেডারেশন।

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, আগে বাংলাদেশে উন্নয়ন কাজের জন্য বিশ্বের কাছে ঋণের জন্য ধর্ণা দিয়ে বসে থাকতে হতো। সেখানে এখন দেশে উন্নয়নে অগ্রগতি চলছে, প্রান্তিক গ্রামে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চেহারা পাল্টে যাচ্ছে। শিক্ষকদের বেতন বাড়ানো হচ্ছে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শিক্ষকদের জন্য আলাদা পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করছেন, শিক্ষকদের উন্নয়ন দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ আছেন। আমাদের অর্থনীতি যখন সেই জায়গায় যাবে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অবশ্যই শিক্ষকদের জন্য আলাদা মর্যাদা দেবেন সেটা আমি বিশ্বাস করি।

তিনি বলেন, আমাদের কাজ এগিয়ে যাচ্ছে, আমরা উন্নত দেশে যেতে চাই। আগে শিক্ষকদের মর্যাদা নিশ্চিত করতে হবে, তারপরে আমরা বলতে পারব আমারা সভ্য জাতিতে পরিণত হতে যাচ্ছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বাস করেন শিক্ষকদের মর্যাদা। তিনি শিক্ষকদের যেভাবে মর্যাদা দেন, সম্মান করেন, তা বাংলাদেশের কোনো রাজনীতিবিদকে করতে দেখিনি। কাজেই তিনি শুধু মুখে বলেন না, তিনি হৃদয়ের ভেতর ধারণ করেন শিক্ষকদের মর্যাদা।

খালিদ মাহমুদ আরও বলেন, সে কারণে আপনারা স্বাধীনতা শিক্ষক কর্মচারী ফেডারেশন ঐক্যবদ্ধ হয়েছেন, আপনাদের লড়াইটা হচ্ছে দাবির বা সম্মানের জন্য নয়। আপনাদের অধিকার মুক্তিযুদ্ধপ্রেমিক এই সরকার প্রতিষ্ঠিত করবে।

আওয়ামী লীগের এই সাংগঠনিক সম্পাদক বলেন, আপনাদের সংগ্রামটা হওয়া দরকার যারা এইটার বিরোধিতা করছে। যারা মুক্তিযুদ্ধকে ধ্বংস করতে চায়, শিক্ষা ব্যবস্থাকে ধ্বংস করতে চায়, তাদেরকে প্রতিহত করার দায়িত্ব আপনাদেরকে নিতে হবে। আপনাদের দায়িত্ব মুক্তিযুদ্ধ প্রেমিক শেখ হাসিনার সরকারের এবং আমি বিশ্বাস করি শেখ হাসিনার সরকারের ধারাবাহিকতা থাকলে অবশ্যই শিক্ষকদের সর্বোচ্চ মর্যাদা প্রতিষ্ঠিত হবে।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন স্বাধীনতা শিক্ষক কর্মচারী ফেডারেশনের চেয়ারম্যান প্রফসর ড. আব্দুল মান্নান চৌধুরী, কো-চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ আব্দুর রশীদ, প্রধান সমন্বয়কারী অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজু প্রমুখ।