২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং, ৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ


শিশুদের ভারী ব্যাগ বহন ও হোমওয়ার্ক নিষিদ্ধ

ক্যাম্পাস ডেস্ক» শিশু শিক্ষার্থীদের পিঠে ব্যাগের বোঝা কমানোর লক্ষ্যে নির্দেশনা জারি করেছে ভারত সরকার। দেশটির কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে শিশু শিক্ষার্থীদের বয়স ও ক্লাস অনুযায়ী ব্যাগ বহনে নির্দিষ্ট ওজনের সীমা বেঁধে দিয়ে ওই নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। এছাড়াও মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়াদের কোন ‘হোম ওয়ার্ক’ (বাড়ির কাজ) দেয়া যাবে না।

দিন দিন ছোট্ট শিশুদের নানা রকম স্কুল তৈরি হচ্ছে। বাড়ছে কোচিং সেন্টারের সংখ্যা। আজকাল তাই প্রায়ই দেখা যায় শিশু শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের পিঠে ভারী ব্যাগ। সেই ব্যাগের ওজনের চাপে অনেক সময় ক্লান্ত হয়ে পড়ে ছোট্ট শিশুরা। শিশুদেরকে এই পরিস্থিতি বিবেচনায় এর আগেও বিভিন্ন নির্দেশিকা জারি করেছিল ভারতের কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রণালয়। কিন্তু ওই নির্দেশনায় কাজ না হওয়ায় আবার নির্দেশনা জারি করল কেন্দ্র সরকার।

কেন্দ্রীয় সরকারের নির্দেশনায় বিভিন্ন ক্লাসের ওপর ভিত্তি করে কোন ক্লাসে কোন বিষয় কীভাবে পড়ানো হবে এবং সেই অনুযায়ী ব্যাগের যে ওজন হওয়া প্রয়োজন তা মেনে চলার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আর এ নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে দেশটির রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলোর বিদ্যালয়ে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ে যে পড়ালেখা হবে সেটাই যথেষ্ট। তাদেরকে বাড়ির জন্য আলাদা করে কোনো ‘হোম ওয়ার্ক’ দেয়া যাবে না। তাছাড়া শ্রেনি হিসেব করে ব্যাগের সর্বোচ্চ ওজনও নির্ধারন করে দেয়া হয়েছে। গোটা দেশের বিদ্যালয়গুলোতে পাঠানো মন্ত্রণালয়ের ওই নির্দেশেনা অনুযায়ী, প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির স্কুল ব্যাগ দেড় কেজির বেশি হবে না। তৃতীয় থেকে পঞ্চম শ্রেণির ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ দুই থেকে তিন কেজি। তাছাড়া ষষ্ঠ ও সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য সর্বোচ্চ চার কেজি, অষ্টম ও নবম শ্রেণির জন্য সাড়ে চার কেজি এবং দশম শ্রেণির ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ পাঁচ কেজি ওজনের চেয়ে ভারী ব্যাগ বহনে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে।

ওই নির্দেশনায় বলা হয়েছে, প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থীদের পড়ানোর ক্ষেত্রে মন্ত্রণালয়ের দেয়া নিয়ম মেনে চলতে হবে। তাছাড়া পাঠ্য বইয়ের বাইরে অতিরিক্ত বই কিংবা অন্যকিছু আনতে বলা যাবে না শিশুদের।