২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং, ৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ


৬ মাসের মধ্যে দেশের সব কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে বিনামূল্যে ইন্টারনেট

ডেস্ক রিপোর্ট» ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার বলেছেন, আগামী ৬ মাসের মধ্যে দেশের সকল সরকারি কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে বিনামূল্যে ইন্টারনেট সংযোগ চালু করা হবে। জনগণের সুবিধার্থে পর্যায়ক্রমে বাসস্ট্যান্ড ও রেলস্টেশনগুলোতে এ সংযোগ প্রদান করা হবে। পিছিয়ে পড়া জাতি হিসেবে আমরা আর থাকতে চাই না। আগামী এপ্রিল মাসে আমরা আমাদের যেসব স্থানে ক্যাবল যায়নি সেখানে স্যাটেলাইটের মাধ্যমে ইন্টারনেট চালু করব।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টায় নেত্রকোনা জেলা প্রেসক্লাব মিলনায়তনে স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, বাঙালি হিসেবে আমরা ৩২৪ বছর পিছিয়ে ছিলাম। প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে আগামী এক বছরের মধ্যে আমরা এই ঘাটতি পূরণ করব।

মোস্তফা জব্বার বলেন, রাজধানীর বাইরে ইন্টারনেট ব্যবস্থা অত্যন্ত নাজুক এটা সত্যি। এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য মন্ত্রণালয় নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ইন্টারনেটের মূল্য সারাদেশে এক করার জন্য যা যা করণীয় সে ব্যবস্থাও নেয়া হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে প্রচলিত মিডিয়া সংবাদপত্র বা চ্যানেলগুলোর চেয়ে এখন সোস্যাল মিডিয়া বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে। মুহূর্তের মধ্যে সকল খবর সারা বিশ্বে ছড়িয়ে যাচ্ছে। একটা সময় আসবে যখন কাগজ-কলমের যুগ শেষ হয়ে যাবে, শুধু ইন্টারনেটের যুগ থাকবে।

মন্ত্রী বলেন, সামনে যে নতুন নতুন প্রযুক্তি আসছে তা গ্রহণ করার জন্য আমাদের সকলের সক্ষমতা অর্জন করতে হবে। আমরা ফাইভ-জি চালুর জন্য কাজ করছি। ফাইভ-জি চালু হলে ২০২০ সালের মধ্যে এদেশ তথ্যপ্রযুক্তি খাতে অনেক এগিয়ে যাবে।

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশকে এগিয়ে নিতে সাংবাদিকদেরকে আরও বেশি দায়িত্বশীল ভূমিকা পালণের আহ্বান জানান তিনি।

নেত্রকোনা জেলা প্রেসক্লাবের পদাধিকার বলে সভাপতি জেলা প্রশাসক মঈন উল ইসলামের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন পুলিশ সুপার জয়দেব চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব মতিয়র রহমান খান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সাবেক এমপি মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ আলী খান খসরু, প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা হায়দার জাহান চৌধুরী, সম্পাদক শ্যামলেন্দু পাল, দৈনিক বাংলার নেত্র পত্রিকার সম্পাদক কামাল হোসেন, সাংবাদিক আলপনা বেগম।